ডিজিটাল মার্কেটিং

Digital Marketing এর ভবিষ্যৎ কি? ডিজিটাল মার্কেটিং এর সুবিধা কি?

আগের পোস্টে আমরা আলোচনা করেছিলাম ডিজিটাল মার্কেটিং কি? কেন Digital Marketing শিখবেন? 

যেহেতু আপনি এই পোস্ট পড়তে এসেছেন তার মানে আপনি ডিজিটাল মার্কেটিং শিখতে ইচ্ছুক, তাই আমার সাজেশন থাকবে এই পোস্ট শুরু করার আগে ৫ মিনিট সময় নিয়ে আগের পোস্টটি পড়ে আসুন🙂 

Digital Marketing এর ভবিষ্যৎ কি?

প্রতিটা কোম্পানীরই মার্কেটিং এবং মার্কেটার এর প্রয়োজন আছে। ব্যবসা যতদিন থাকবে মার্কেটিং এর প্রয়োজন ততদিন পড়বে। আগের পোস্ট থেকে আমরা জেনেছিলাম মার্কেটিং সেখানেই হবে যেখানে অডিয়েন্স, আর এটা আমরা খুব ভালো করেই জানি যে অডিয়েন্স এখন ইন্টারনেটে।

বিশ্বের ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর সংখ্যা এখন ৪.৬৬ বিলিয়ন এবং এই সংখ্যা প্রতিনিয়ত অবিশ্বাস্য হারে বেড়েই চলেছে। বাস্তব দুনিয়া ছেড়ে ভার্চুয়াল দুনিয়ার দিকে মানুষজন বেশি ঝুকছে, ঘণ্টার পর ঘণ্টা অনায়াসেই ব্যায় করছে ইন্টারনেটে। যার ফলে মার্কেটিং ইন্ড্রাসটি অনেকই আগেই এখানে মুভ করেছে। 

টিভি, রেডিও, বিলবোর্ড এইসব ট্রেডিশনাল মার্কেটিং থেকে এডভাইটাইজাররা আগের মতো আউটপুট পাচ্ছে না। ছোট, বড় সব ধরণের বিজনেস এখন ডিজিটালাইজ হচ্ছে এবং ডিজিটাল মার্কেটিং এ গুরুত্ব দিচ্ছে।  ২০২০ সালে গ্লোবাল ডিজিটাল মার্কেটিং এর ভ্যালু ছিলো ৩৫০ বিলিয়ন ডলার এবং ধারণা করা যায় ২০২৬ সালে গিয়ে দাড়াবে ৭৮৬.২ বিলিয়ন ডলারে।

বড় জায়েন্ট কোম্পানীগুলো অলরেডি ডিজিটাল মার্কেটিং এ শিফট হয়েছে। ট্রেডিশনাল মার্কেটিং যেহেতু আর আগের মতো কাজ করছে না তাই আগামী দিনগুলোতে সব ধরণের কোম্পানীকেই বাধ্য হয়েই ডিজিটালে মুভ হতে হবে। বর্তমান সময়েই ডিজিটাল মার্কেটারের চাহিদা অনেক, আর যখন সব ধরণের বিজনেস ডিজিটালে মুভ করবে এর চাহিদা আরো কয়েক গুণ বেড়ে যাবে। তাই আপনি যদি এখন থেকেই নিজেকে একজন স্কিলেড Digital Marketer হিসেবে গড়ে তুলতে পারেন আশা করি আপনার ক্যারিয়ার নিয়ে চিন্তা-ভাবনা করতে হবেনা, কেননা ডিজিটাল মার্কেটিং এর ভবিষ্যৎ অনেক ভালো। 

ডিজিটাল মার্কেটিং এর সুবিধা কি?

উদাহরণস্বরূপ ধরা যাক আপনার হোস্টিং কোম্পানী আছে এবং আপনি এটির মার্কেটিং করবেন তাই হোস্টিং এর প্রচারণার জন্য শহরের মেইন পয়েন্টে একটি বিলবোর্ড দিলেন অথবা টিভির কোন চ্যানেলে বিজ্ঞাপন দিলেন। 

শহরের যে স্থানে আপনি বিলবোর্ড দিয়েছেন সেখানে সব ধরণের মানুষই থাকবে, একই জিনিস টিভির ক্ষেত্রেও টিভি চ্যানেলে সব ধরণের ভিউয়ারর্স থাকবে। এই যে আপনি সব ধরণের মানুষকে বিজ্ঞাপন দেখালেন এরা কি হোস্টিং সম্পর্কে সবাই জানে? বা জেনে থাকলেও এরা সবাই কি হোস্টিং এর কাস্টমার? যদি এরা হোস্টিং এর কাস্টমার না হয়ে থাকে, তাহলে আপনার বিজ্ঞাপন দেয়াতে কোন লাভই হোলনা। 

যাদের আপনি বিজ্ঞাপন দেখালেন তারা আপনার টার্গেটেড কাস্টমার কিনা, কতজন  টার্গেটেড কাস্টমার আপনার বিজ্ঞাপন দেখলো, এর মধ্যে কতজন বিজ্ঞাপন দেখে হোস্টিং কিনলো ইত্যাদি এইসব কোন ডাটাই আপনি ট্রেডিশনাল মার্কেটিং এ পাবেন না, আর এখানেই ডিজিটাল মার্কেটিং এর সুবিধা। 

ডিজিটাল মার্কেটিং এ আপনি স্পেসেফিক অডিয়েন্স, নিদির্ষ্ট কান্ট্রি, শহর, বয়স, জেনডার, ইন্টারেস্ট ইত্যাদি বিভিন্ন ক্রাইটেরিয়া সেট করে মার্কেটিং করতে পারবেন। মার্কেটিং শেষে আবার ডাটা এনালাইস করতে পারবেন, কারা আপনার হোস্টিং কিনলো, কোথায় থেকে কিনলো, কত টাকার কিনলো, কোন মাধ্যমে কিনলো ইত্যাদি।

একটি ছোট ব্যবসা যা মাত্র যাত্রা শুরু হয়েছে তাদের হাতে কিন্তু খুব বেশি ইনভেস্টমেন্ট থাকেনা, যার ফলে তারা চাইলেই প্রথমেই বড় বড় বিলবোর্ড বা টিভি চ্যানেলে অত টাকা খরচ করে মার্কেটিং করতে পারেনা। কিন্তু ডিজিটাল মার্কেটিং এ যার যেমন বাজেট আছে তা দিয়ে মার্কেটিং শুরু করতে পারে, ডিজিটাল মার্কেটিং এর এটা একটা বড় সুবিধা এবং ব্যবসায়ীদের জন্য আর্শীবাদ ও বলা যেতে পারে।

Digital Marketing এর আরো অনেক সুবিধা আছে একই সাথে কিছু অসুবিধাও আছে যা অন্য আরেকটা পোস্টে তুলে ধরবো। এই পোস্ট সম্পর্কে কোন প্রশ্ন থাকলে কমেন্টে জানাতে পারেন, ধৈর্য্য নিয়ে এতক্ষণ পড়ার জন্য ধন্যবাদ।

4 thoughts on “Digital Marketing এর ভবিষ্যৎ কি? ডিজিটাল মার্কেটিং এর সুবিধা কি?”

Leave a Comment